News Section:

ব্যবসায়ীর নববধুকে ধুলিয়াখালে ফিল্মি স্টাইলে অপহরণ

শায়েস্তাগঞ্জের এক ব্যবসায়ীর নববধুকে ফিল্মি স্টাইলে অপহরণ করে নিয়ে গেছে একদল দুর্বৃত্ত। এসময় ওই ব্যবসায়ী বাধা দিলে তাকে পিটিয়ে আহত করা হয়। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ধুলিয়াখাল আমতলি নামকস্থানে। জানা যায়, শায়েস্তাগঞ্জ কাজীগাঁও গ্রামের মৃত খুর্শেদ আলীর পুত্র ফার্ণিচার ব্যবসায়ী জাহেদুল আলম জুয়েল প্রায় ২ সপ্তাহ পূর্বে বিয়ে করেন বানিয়াচং উপজেলার ইকরাম গ্রামের আকল মিয়া মেম্বারের অষ্টাদশী সুন্দরী কন্যা সামিয়া আক্তারকে। বিয়ের পর ফিরাযাত্রা শেষে শুক্রবার বিকেলে হবিগঞ্জ থেকে সিএনজি অটোরিকশাযোগে নববধুকে নিয়ে জাহেদুল ইসলাম বাড়ি ফিরছিলেন। সিএনজি অটোরিকশাটি উল্লেখিতস্থানে পৌঁছুলে বানিয়াচং বড় বাজার এলাকার খলিল আহমেদসহ একদল দুর্বৃত্ত সিএনজি ও মোটরসাইকেলযোগে এসে নববধুকে বহনকৃত সিএনজিটি আটক করে জোরপূর্বক নববধুকে অপহরণ করে। এসময় স্বামী জাহেদুল ইসলাম বাধা দিলে তাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নববধুকে তুলে নিয়ে যায়। দুর্বৃত্তদের হামলায় জাহেদুল ইসলাম আহত হয়। গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত জাহেদুল ইসলাম বলেন- “খলিল দীর্ঘদিন ধরে সামিয়াকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এতে অতিষ্ট হয়ে সামিয়ার পিতা ২ সপ্তাহ পূর্বে সামিয়াকে আমার সঙ্গে বিয়ে দেন। বিয়ের পরও লম্পট খলিল ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা আমাকে ও আমার স্ত্রীকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল।” এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।