News Section:

ঢাকা বোর্ডের পরীক্ষা বিশেষজ্ঞ সালেহ আতাহার আর নেই

 বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তা সালেহ আতাহার খান (পিপলু) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি...রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৪৮ বছর। ডায়াবেটিক ও পানি শূন্যতায় আক্রান্ত হয়ে গত শুক্রবার তিনি বারডেম হাসপাতালে ভর্তি হন। এখানে অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় শমরিতা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সেখানে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। গতকাল বাদ জুমা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড মসজিদে প্রথম এবং কাওলার বাজার জামে মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। অধ্যাপক মুনতাসির মামুন, বিমানমন্ত্রী কর্নেল (অব.) ফারুক খান, দৈনিক মানবজমিন-এর প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, টেকনিক্যাল এডিটর মেহযেব রহমান চৌধুরীসহ সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ শরিক হন। পরে তাকে কাওলা কবরস্থানে দাফন করা হয়। সালেহ আতাহার বেশ কিছুদিন সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তিনি দৈনিক বাংলাবাজার পত্রিকার জন্মলগ্ন থেকে সহ-সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে যোগদানের পর তিনি সাংবাদিকতা পেশা থেকে অবসর নেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে এক মেয়েসহ বহু আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। সালেহ আতাহারের অকাল মৃত্যুতে মানবজমিনের প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী গভীর শোক প্রকাশ করেন। বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক সালেহ আতাহার ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের অধীনে বাংলাদেশ এডুকেশন ডেভেলপিং শাখার পরীক্ষা বিশেষজ্ঞ হিসাবে কর্মরত ছিলেন। তার বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলার মিয়াখালী গ্রামে। ওই গ্রামের সম্ভ্রান্ত খা বাড়িতে তার জন্ম। তার পিতা মরহুম মনোয়ার আলী খান।